Thursday , December 13 2018
Breaking News
Home / Career Counseling / Career Guide / What should you try to avoid or what to include while writing your CV / জীবনবৃত্তান্তে বা সিভি তে যা করবেন আর করবেন না…
CV writing Tips

What should you try to avoid or what to include while writing your CV / জীবনবৃত্তান্তে বা সিভি তে যা করবেন আর করবেন না…

ক্যারিয়ার গাইড বিভাগে আমরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো যেগুলি আপনার চাকুরির আবেদন করার সময় কাজে লাগতে পারে।আমাদের আজকের বিষয় হল আপনার সিভি বা জীবনবৃত্তান্তে কি কি লিখা উচিৎ আর অনুচিত।

 

জীবনবৃত্তান্তে বা সিভি তে যা করবেন আর করবেন না…

সবারই লক্ষ্য থাকে একটা ভালো চাকরি পড়াশোনা শেষ হবার পর। জব মার্কেট বা চাকুরির চলতি বাজারে ‘চাকরি চাই, চাকরি চাই’ বলে যতই চিৎকার করুন না কেন আসল ব্যাপার হল এটা যেমন সত্যি যে অনেক প্রতিষ্ঠানে লোক সংখ্যার আধিক্য এর কারনে যেমন চাকুরী নাই তেমনি অনেক প্রতিষ্ঠানই তাদের প্রত্যাশিত কর্মী খুঁজে পাচ্ছে না। বিষয়টা এখন অনেকটা বিরক্তিকর আর অধৈর্য এর কারন হয়ে গেছে তরুন প্রজন্মের চাকুরি প্রার্থীদের কাছে।

চাকরি দেয়ার আগে প্রতিষ্ঠান ও আবেদন প্রার্থীদের মধ্যে যে বিষয়টি দিয়েই প্রথম পরিচয় পর্ব হয়, তা হল একটা কারিকুলাম ভিটা (সিভি) বা জীবন বৃত্তান্ত। কথায় আছে, ‘আগে দর্শনধারী, পরে গুণবিচারী’। আর চাকুরিদাতা প্রতিষ্ঠান আপনার প্রথম দর্শন পাবে আপনার সিভিতেই। কোন প্রতিষ্ঠান যাকে চাকরি দিতে চায়, তার সম্পর্কে যেমন জানতে আপনিও তেমন জানাতে চাইবেন প্রতিষ্ঠান টি সম্বন্ধে। কিন্তু সব কিছুরই একটা পদ্ধশম্মন্ধেয়ার সেই পদ্ধতিই হল সিভি বা জীবন বৃত্তান্ত। অমনোযোগী বা যেনতেন ভাবে তৈরি করা সিভি উপকারের চাইতে ক্ষতিই বেশি করতে পারে। তাই জেনে নিন সিভিতে কি করবেন আর কি করবেন না।
বিশেষজ্ঞদের মতে, কাকে চাকরি দেয়া হবে বা হবে না, সেটা নির্ণয় করতে প্রাথমিকভাবে মাত্র ৬ সেকেন্ড সময় নেন রিক্রুটমেন্ট অফিসার। যদি আপনাকে পছন্দ হয়, তবেই কথা এগোবে। তাই বুঝতেই পারছেন সঠিক সিভি আপনাকে সাফল্যের দোড়গোড়ায় পৌঁছে দিতে পারে। এ ব্যাপারে জেনে নিন কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য।

বড় না করে সংক্ষিপ্ত কিন্তু প্রয়োজনীয় বিষয়গুলো রাখুন:

অনেকেরই এই ধারণা যে যত বেশি পাতার সিভি হবে প্রতিষ্ঠান তত বেশি খুশি হবে আর আপনাকে যোগ্য মনে করবে। ব্যাপারটি একেবারেই সত্যি নয়। সব সময় মনে রাখবেন, চাকরির জন্য আপনি একাই দরখাস্ত করেননি। আরো অনেকেই, হতে পারে হাজারের ও বেশি লোক আবেদন করেছে। তাই আপনার সম্পর্কে যেটা না জানালেই নয় সেই মূল পয়েন্টগুলোই সিভি তে হাইলাইট করে সংক্ষিপ্ত করে সিভি তৈরি করুন।

অনেক কাজের অভিজ্ঞতা:

আপনি অনেক সংস্থায় কাজ করেছেন এবং আপনার প্রচুর অভিজ্ঞতাও রয়েছে এটা ভাল কথা। কিন্তু এটাও মনে রাখবেন, যত বেশি সংস্থায় আপনি কাজ করেছেন তার মানে আপনি তত বার চাকরি পাল্টেছেন। তাই বুঝে শুনে অভিজ্ঞতার কথা লিখুন। খুব অল্প দিনের জন্য কাজ করার অভিজ্ঞতা উল্লেখ না করাটাই উচিৎ।

ব্যক্তিগত তথ্য:

আপনি বিবাহিত কিনা, আপনার জন্ম তারিখ, আপনার হবি, আপনার ধর্ম কী— এসব ব্যাপারগুলো সিভি তে রাখা আমাদের সবারই অনেকদিন এর একটা প্রচলিত প্রথা। এখনকার যুগে এমপ্লয়্যাররা এসব বেপারে জানতে একেবারেই আগ্রহী নয় এটা সবার আগে আপনাকে মাথায় রাখতে হবে। ব্যক্তিগত ব্যাপারে জানার থাকলে আপনাকে জিজ্ঞাসা করে নেওয়া হবে। আলাদা করে সিভিতে হাইলাইট করে দেয়ার দরকার নেই।

মিথ্যা তথ্য দেয়া:

অন্যকে বোকা মনে করলে খালি হাতেই ফিরতে হবে। মিথ্যে তথ্য লিখবেন না। মনে রাখবেন মিথ্যা ধরা পড়ে গেলে চাকরি হওয়ার পরেও নাকচ হয়ে যেতে পারে।

বর্তমান কাজের জায়গায় তথ্য এবং বসের নাম:

নতুন চাকরির খোঁজে ইন্টারভিউ দিতে যাচ্ছেন। তাই বলে বর্তমান কাজের জায়গার যাবতীয় তথ্য সিভিতে লেখার কোনো কারণ নেই। আপনি নিশ্চয়ই চাইবেন না চাকরির খবর আপনার অফিসেও পৌঁছে যাক বা কাজের ব্যাপারে অফিসেই আপনাকে ফোন করা হোক। আপনার বর্তমান কাজের বেপারে খোঁজ নিতে হলে তারাই সিভি তে রাখা প্রয়োজনীয় তথ্য নিয়ে যোগাযোগ করবে।

বেতন কাঠামো:

আগে তো আপনার কাজ এবং অভিজ্ঞতা। সেটা যদি পছন্দ হয় তবেই বেতনের প্রসঙ্গ আসবে। তাই কষ্ট করে ওটা আগেই দেয়ার প্রয়োজন নেই। আপনাকে পছন্দ হলে এমনিতেই প্রতিষ্ঠানের কর্তারা আপনার কাছে আপনার মতামত জানতে চাবেন। তবে চাকুরির বিজ্ঞাপনে বেতন আগেই উল্লেখ করা থাকলে সেটা নিয়ে অতিরিক্ত তর্ক না করাই ভাল কারন আপনি বিজ্ঞপ্তি পরে জেনে শুনেই তবেই আবেদন করেছেন।

কেন চাকরি বদলাতে চাইছেন:

আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার। যদি অন্য কোনও সমস্যা থেকেও থাকে, সেটা বলার জন্য ইন্টারভিউর সময়টাকে ব্যবহার করুন। অযথা আগ বাড়িয়ে বলতে গেলে বেকার সমস্যায় জড়াতে পারেন। আর কখনও আগের চাকুরির অসুবিধার বেপারে আগ বাড়িয়ে অযথা মিথ্যা কথা আর বদনাম করতে যাবেন না। এটা নতুন চাকুরিদাতাদের মনে আই আশংকার জন্ম দিতে পারে যে চাকুরি ভাল না লাগলে একদিন তাদের বেপারেও হয়ত এরকম বদনাম করে বেড়াবেন অন্য কোন প্রতিষ্ঠানে।

নিজের সম্পর্কে হম্বি-তম্বি:
‘আমি ওমুক করেছি’, ‘আমি খুব মোটিভেটেড’, ‘আমার কমিউনিকেশন স্কিল খুব ভালো’ ,“ আমি এইটা ওইটা করে দেখাব” ইত্যাদি বাগাড়ম্বর করবেন না। আপনি কী বা কে সেটা ইন্টারভিউ নেয়ার সময় রিক্রুটমেন্ট অফিসারই ঠিক করে নেবেন।

 

[Total: 1    Average: 5/5]

Check Also

Important General Knowledge for all jobs by bdjobstoday.net

Good To Know: 75 || Important General Knowledge / প্রয়োজনীয় সাধারন জ্ঞান

প্রয়োজনীয় সাধারন জ্ঞান ১) পৃথিবীর সুখী দেশের তালিকায় বাংলাদেশ – ১১৫ তম ( ১৫৬ টি …

Important Math Solution (Father & Son) by bdjobstoday.net

Good To Know: 74 || Math Solution (Father & Son) / পিতা ও পুত্রের কঠিন গনিতের সমাধান করুন খুব সহজেই

পিতা ও পুত্রের কঠিন গনিতের সমাধান করুন খুব সহজেই ★ পিতা পুএের অনুপাত ★ প্রশ্ন১:-পিতা …

Important English Linking Words or Connectors in Bengali by bdjobstoday.net

Good To Know: 73 || Important Linking Words or Connectors / গুরুত্বপূর্ণ কিছু ইংরেজি সংযোগকারী শব্দ

গুরুত্বপূর্ণ কিছু ইংরেজি সংযোগকারী শব্দ ✪ As – কারন, যেহেতু ✪ Say- ধরা যাক ✪ …

Good To Know: 67 || 149 Important Translations Together by bdjobstoday.net

Good To Know: 67 || 149 Important Translations Together / ১৪৯ টি গুরুত্বপূর্ণ অনুবাদ একসাথে

১৪৯ টি গুরুত্বপূর্ণ অনুবাদ একসাথে ১, অভাবে সভাব নষ্ট– Necessity knows no law. ২, অতি …